Dainik Kagoj
Bangla News Portal

পাটগ্রাম ও হাতীবান্ধার মানুষের কর্মসংস্থানের সমস্যার সমাধান করতে চাই : বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল

201

পাটগ্রাম সংবাদদাতা, লালমনিরহাট:
লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন বলেছেন, লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম, হাতীবান্ধা, কালীগঞ্জ, আদিতমারী উপজেলার মানুষের প্রধান সমস্যা হলো কর্মসংস্থানের অভাব। আর এ সমস্যার সমাধান অত্যন্ত জরুরী। আমি আমার এলাকার মাটি ও মানুষের সঙ্গে চলি। এটা আমার জন্মভূমি। আমি এখানকার জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হলে এই এলাকার মানুষের কর্মসংস্থানের সমস্যার সমাধান করবো ইনশাল্লাহ!

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লালমনিরহাট-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন সাংবাদিকদের দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন। লালমনিরহাট-১ আসনটি লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম উপজেলা ও হাতীবান্ধা উপজেলা নিয়ে গঠিত।

জানা যায়, ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতিতে যুক্ত মকবুল হোসেন ১৯৭১ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে মুক্তিযুদ্ধের যান এবং স্বাধীনতার পরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পাটগ্রাম উপজেলা ও জেলা শাখার পূর্ণঙ্গ কমিটি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন।এভাবেই আওয়ামী পরিবারে বেড়ে উঠা মকবুল হোসেন উপজেলায় অনেক শিক্ষা প্রতিষ্টানসহ বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজ করে আসছেন এবং তিনি লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া মকবুল হোসেন পাটগ্রাম জেলার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও রংপুর কারা মাইকেল কলেজ শাখার ছাত্র লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

- Advertisement -

সাধারণ মানুষ জানায়, রাজনীতিতে সক্রিয় মকবুল হোসেন এলাকায় বিভিন্ন সময়ে বিশেষ করে করোনা মহামারি ও বন্যার সময় অসহায় মানুষদের পাশে সহায়তার হাত বাড়িয়েছেন। রাজনীতির পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সম্পৃক্ত। তিনি অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উপদেষ্টা, ১১৯ নং বাঁশকাটা নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আজীবন দাতা সদস্য।

খোঁজ নিয়ে আরও জানা যায়, গত এক যুগে এলাকার সাধারণ মানুষের পাশাপাশি দলের নেতা কর্মীদের আস্থা অর্জন করেছেন মকবুল হোসেন। লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগ, পাটগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগ, হাতিবান্ধা উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গন যথাযথ ভূমিকা রেখে চলেছেন।

মানুষের সেবা করাই জীবনের একমাত্র উদ্দেশ্য জানিয়ে মকবুল হোসেন বলেন, দেশের জন্য ও দেশের মানুষের জন্য কিছু করতে চাই। মাননীয় নেত্রী শেখ হাসিনা যখন যে নির্দেশনা দিবেন, সেই নির্দেশনা অনুসারে কাজ করে যাবো। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয় নিয়ে দেশরত্ন শেখ হাসিনার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের পর এবার স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সমাজের পিছিয়ে পড়া অবহেলিত নিপিড়িত গরীব-দুঃখী মানুষদের পাশে দাঁড়ানো আমার প্রধান উদ্দেশ্য। তাই আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন আমি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাসী।

Leave A Reply

Your email address will not be published.